সফল ব্লগ তৈরীতে করনীয় ও কার্যকরী কৌশল

বর্তমানে বাংলায় অনেক ব্লগ আছে। বাস্তবতায় ব্লগ এর চেয়ে লেখক কম। সফল ব্লগ তৈরীতে করনীয় ও কার্যকরী কৌশল নিয়ে টেকপ্রেমী আতিকুর রহমান দেখুন শখের বসেই ব্লগ খুলে বসা ব্লগকে কিভাবে পপুলার যায়।

ডোমেইন নেইম নির্বাচনঃ আপনি সত্যি সত্যি ব্লগ কে প্রতিষ্ঠিত করতে চান?? চিন্তা ভাবনা করে একটা ভালো নাম বা ডোমেইন নেম ঠিক করুন কারন নামটা অনেক গুরুত্বপূর্ণ। এরপর যেটা বেশি গুরুত্বপূর্ণ হল হোস্টিং। দেখে শুনে ভালো মানের হোস্টিং কিনুন। দামের ক্ষেত্রে কার্পণ্য না করে কোয়ালিটি সম্পন্ন সার্ভার হোষ্ট করুন। কারন এর উপর আপনার ব্লগ দাড়িয়ে থাকবে সুতরাং মূল ঠিক না থাকলে উপরে পড়তে পারে।
কন্টেন্ট ডেভেলপমেন্টঃ এরপর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল কন্টেন্ট। আপনার ব্লগ এর কন্টেন্ট যদি ইউনিক এবং মানসম্মত না হয় তাহলে আপনার ওখানেই শেষ। একটা প্রশ্ন সব সময় নিজেকে করবেন। আর সেটা হল আপনার ব্লগ এমন কি আছে যার কারনে ভিসিটর আপনার ব্লগ আসবে? নিজে নিজে উত্তর দেয়ার চেষ্টা করুন এবং দেখুন সেই উত্তরে আপনি নিজেই সন্তুষ্ট কিনা। যেদিন আপনি নিজে সন্তুষ্ট হতে পারবেন সেদিন মনে করবেন ভিসিটররাও সন্তুষ্ট এবং সেদিন থেকে ভিসিটররাও আপনার ব্লগ এ আসবে।
প্রচার ও সামাজিক যোগাযোগঃ এরপর যে বিষয়টি গুরুত্বপূর্ণ সেটা হল, আপনি ব্লগ করলেন এবং সেখানে ইউনিক এবং মানসম্মত পোস্ট ও আছে কিন্তু আপনার যে একটা ব্লগ আছে এবং সেখানে ইউনিক এবং মানসম্মত পোস্ট আছে কেউই জানে না। তাহলে কি ভিসিটর আপনার ব্লগ এ আসবে। আমার মনে হয় এর উত্তর আপনিই ভালো দিতে পারবেন। তাহলে এখন কি করতে হবে? আপনাকে যেটা করতে হবে সেটা হল আপনার যে একটা ব্লগ আছে এবং সেখানে ইউনিক এবং মানসম্মত পোস্ট আছে সেটা সবাইকে জানতে হবে। জানাতে হলে এস ই ও করতে হবে। যেন যেকেউ আপনার ব্লগ এ থাকা বিষয়ে সার্চ করলে আপনার ব্লগ এর ঠিকানা পায়। আপনি চাইলে বিজ্ঞাপন ও দিতে পারেন। কথায় আছে প্রচারই প্রসার। মানুষ যত জানবে ততই আপনার ব্লগ পপলারিটি পাবে। আমি এখনে এস ই ও বলতে সবধরনের কাজকে বুঝিয়েছি যে কাজগুলো করলে আপনার ব্লগ এর প্রচার হবে যেমনঃ সোশ্যাল শেয়ার, ব্যাকলিঙ্ক, সার্চ ইঞ্জিন সাবমিট ইত্যাদি।
গেষ্ট ব্লগিংঃ এরপর যে বিষয়টি বলতে চাচ্ছি সেটা হল আপনার ব্লগ যে বিষয় এর উপর ঐ বিষয় সম্পর্কিত ব্লগ গুলো খুজে বের করে নিয়মিত পোস্ট করা। যদিও এ বিষয়টি এস ই ও এর মধ্যে পর তারপরেও আলাদা ভাবে আলোচনার কারন হল বিষয়টি অনেক গুরুত্বপূর্ণ। যেমনঃ আপনার ব্লগ টি যদি প্রযুক্তি বিষয়ক হয়। তাহলে যারা প্রযুক্তি প্রেমিক বা যারা প্রযুক্তি বিষয়ক ব্লগ সবসময় দেখেন তারা সবসময় প্রযুক্তি বিষয়ক নতুন নতুন জিনিস সবসময় খোঁজেন। যেখানে তারা নতুন কিছু পাবে তারা সেখানেই যাবে হয় সেটা নতুন কোন ব্লগ বা অনেক আগের। তাই যদি আপনি নিয়মিত এই কাজটি করতে পারেন তাহলে এখান থেকে অনেক ভিসিটর পাবেন আশা করা যায়। তাছাড়া আপনার ব্লগ কে সবার সামনে তুলে ধরতে আপনাকে এই কষ্ট গুলো করতেই হবে।
লোডিং স্পীডঃ এখন যে বিষয়টি বলতে চাচ্ছি সেটা হল সাইট এর স্পীড নিয়ে। একটা ব্লগ এর ক্ষেত্রে সাইট এর লোডিং স্পীড অনেক বড় একটা ফ্যাক্টর হিসাবে কাজ করে। আপনার সাইট বা ব্লগ যদি লোড হতে বেশি সময় নেয় বা আপনার ব্লগ এর সাইজ অনেক বড় হয় তাহলে ভিসিটররা বিরক্ত হয়ে আপনার ব্লগ এ আর আসতে চাবে না। একটা জিনিস ভালো করে মনে রাখবেন ভিসিটর আনার চেয়ে তাদের রক্ষা করা অনেক কঠিন একটা কাজ। মনে করেন অনেক কিছু করে আপনার ব্লগ এ ভিসিটর আনলেন কিন্তু কোন কারনে যদি তারা একবার বিরক্ত হয়ে চলে যায় তাহলে সহজে আপনার ব্লগ আর সে আসতে চাবে না কারন সে একবার এসে আপনার ব্লগ এর অবস্থা দেখে গেছে কিন্তু যদি সে নতুন ভিসিটর হত তাহলে সে কিন্তু আপনার ব্লগ সম্পর্কে কিছুই জানতো না তাই সে সহজেই আপনার ব্লগ এ ভিসিট করতে আসতো। আমি কি বুঝিয়েছি আশা করি বুঝেছেন। একটা ব্যাপার সবসময় মনে রাখবেন কোন ভিসিটর কিন্তু আপনার ব্লগ আসতে বাধ্য নয়। একটা উদাহরন দিয়ে বুঝিয়ে দেই। যখন এস এস সি বা এইস এস সি ফলাফল দেয় তখন আমরা অনেকেই ওয়েবসাইট থেকে ফলাফল নেই। কিন্তু তখন ঐ সাইট কি অবস্থা কি থাকে আমার মনে হয় সকলের জানা। কিন্তু কথা হল যতই এই সাইট এর অবস্থা খারাপ হউক বা স্পীড কম থাক আমাদের যদি ফলাফল নিতে হয় বা দেখতে হয় তাহলে এই সাইট থেকেই নিতে হবে তাই আমরা অনবরত চেষ্টা চালিয়ে যাই এই সাইট এ কি করে প্রবেশ করে ফলাফল নিতে। এখনে একটু খেয়াল করুন আমাদের এখানে কোন অপশন নেই কারন ফলাফল যদি নিতেই হয় এখান থেকেই নিতে হবে। কিন্তু ব্লগ এর ক্ষেত্রে দেখুন আমাদের দেশে হাজার হাজার ব্লগ আছে। আপনার ব্লগ এ যদি কেউ না এসে তাহলে তার তেমন কোন যায় আসে না কারন বাকি জেকন ব্লগ থেকে সে তার চাহিদা মেটাতে পারবে তবে আপনার ব্লগ এ যদি সে না আসে আপনার ব্লগ চলবে না। ভাবতে পারেন একজন আপনার ব্লগ এ না আসলে তেমন কিছুই হবে না। আপনি যদি এটা ভাবেন তাহলে ধরা খাবেন ১০০% গ্যারান্টি। লোডিং স্পীড বাড়াতে ক্যাশিং, সিডিএন, ওপটিমাইজেশান করা যেতে পারে।
ডিজাইনঃ ব্লগ এর ডিজাইন ও অনেক কিছু বহন করে। আপনি যে ব্লগ নিয়ে সফলতা আশা করতেছেন তার ডিজাইন অবশ্যই মার্জিত ও রুচিশীল হওয়া বাঞ্ছনীয়। কারন অনেক ভিসিটর এর কাছে ডিজাইন তেমন কোন ফ্যাক্টর না তাদের কাছে কন্টেন্টই প্রধান। যদি আপনার ব্লগ এ কুয়ালিটি সম্পন্ন কন্টেন্ট থাকে তাহলে সে আসবে কিন্তু কেউ কেউ কন্টেন্ট এর সাথে ডিজাইন ও পরখ করে দেখে। তাছাড়া কেউ পছন্দ করুক আর নাই করুক সাইট বা ব্লগ এর ডিজাইন সুন্দর হওয়া দরকার। আমি সুন্দর বলতে ব্লগকে একে বারে বিভিন্ন ধরনের কালার দিয়ে এক জগাখিচুরি মার্কা ডিজাইন এর কথা বলিনি। আমার নিজের মতে , ডিজাইন হওয়া উচিত একেবারে সিম্পল। কারন সিম্পল ডিজাইনই মানুষ বেশি পছন্দ। সিম্পল এর মাঝেই যতটুকু সুন্দর করা যায় ওটাই ভালো। তবে এই সিম্পল ডিজাইন বাক্তি ভেদে ভিন্ন হতে পারে। কারন সবার পছন্দ ও চাওয়া এক না।
ব্লগারঃ একটা ব্লগ এর অন্যতম প্রধান অংশ হল এর লেখক। তাই সব সময় কি করে তাদের লেখার জন্য অনুপ্রাণিত ও আকর্ষিত করা যায় সে দিকে আপনাকে কড়া নজর রাখতে হবে। আপনি তাদের অনুপ্রাণিত করতে এবং তাদের সম্মানিত করতে আপনার ব্লগ এ সর্বোচ্চ লেখকদের ১০ থেকে ২০ জনের একটা লিস্ট অ্যাড করুন। কারন যারা লেখক তারা চায় যে তাদের যোগ্য সম্মান দেয়া হোক এবং তিনি যে এখানে অনেক কষ্ট করে পোস্ট করেন সেটা সবাই দেখুক এবং জানুক। সত্যি কথা বলতে যারা নিয়মিত পোস্ট করেন তারা যখন লিস্ট এ তাদের নাম দেখতে পান আমার মনে হয় নিজেকে অনেক ধন্য মনে করেন এবং অনুপ্রাণিত হন। আমি জানি না আমার এই কথা কতটুকু সত্য তবে সবাই না হলেও অনেকেই চায় লিস্টের সবার প্রথম নামটা যেন তারই হয়। তবে একটা কথা বলি সেটা হল যতই যা করি না কেন একজন লেখকের অবদান কোন কিছুই করে শোধ কড়া যাবে না এবং আমি কোন লেখককে ছোট করার জন্য এগুলো লিখিনি সুধুমাত্র তাদের অনুপ্রাণিত করার জন্য লিখেছি তাই এটাকে কেউ দয়া করে খারাপ ভাবে নিবেন না।
মতামতঃ একজন লেখক লেখক যখন কোন পোস্ট পাবলিশ করে তখন সে চায় সবাই তাতে কন্ট্রিবিউট করুক। সোজা কথা হল তার পোস্ট এ যেন সবাই কমেন্ট করে বা ভোট দিক। এতে যিনি পোস্ট লেখেন তিনি অনেক গর্ব অনুভব করেন এবং অনেক অনুপ্রাণিত হন। কিন্তু কমেন্ট করলে পোস্ট এর লেখক রা অনেক অনুপ্রাণিত হন ভালো কথা কিন্তু যারা কমেন্ট করবেন তাদের কে অনুপ্রাণিত করবে তাই তাদের কে অনুপ্রাণিত করতে সর্বোচ্চ কমেন্টকারীদের একটা লিস্ট এবং কি কমেন্ট করেছে সেগুলর সর্বশেষ কিছু কমেন্ট আপনার ব্লগ এ অ্যাড করুন। এতে সবাই কিছুটা হলেও আগ্রহী হবে।
যোগাযোগ ও অংশগ্রহনঃ ভিসিটররা যাতে করে বেশি বেশি আপনার ব্লগ এ অংশগ্রহন করতে পারে সে ব্যাবস্থা করুন। উদাহরন স্বরূপ বলা যেতে পারে পোল সিস্টেম, লাইক এর সিস্টেম বা ভোট এর সিস্টেম অ্যাড করতে পারেন। এতে ভিসিটরদের আগ্রহ কিছুটা হলেও বারতে পারে।

এতক্ষণ ধরে যা লিখলাম তা আমার সামান্য অভিজ্ঞতার আলোকে নিজস্ব মতামত। কোন ভুলভ্রান্তি হলে ক্ষমা করে দিবেন। যাতে সামনের দিকে আরও এগিয়ে যেতে পারি সে জন্য দোয়া করবেন।

 

প্রকাশনায় অ্যানিটেক

আপনার মতামত ...