অকল্পনীয়ভাবে এটিএম হ্যাক বাংলাদেশে

এটিএম মেশিন হ্যাক তাও আবার লেনদেন বন্ধের জন্য ন্যাশনাল পেমেন্ট সুইচ কিছুক্ষনের জন্য অচল! চোখে ভূল দেখছেন না তো?? ….ঠিকই পড়ছেন। ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যংক এর অটোমেটেড টেলার মেশিন এই ঘটেছে এমন ঘটনা।

ATM hacked in Bangladeshহ্যাকিংয়ের খবরটি উদ্ভাবিত হয় যখন ইস্টার্ন ব্যাংকের একটি কার্ডের মাধ্যমে একই দিনে ২১ টি সন্দেহজনক লেনদেনের ঘটনা ঘটানো হয় ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের এটিএম বুথের মাধ্যমে।

এক প্রতারক ইস্টার্ন ব্যাংকের নকল একটি এটিএম কার্ডের মাধ্যমে ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের সিস্টেম সিকিউরিটি অ্যালার্ম পুরোপুরিভাবে বন্ধ করে দিতে সক্ষম হন এবং তারপরই অর্থ জালিয়াতির ঘটনাটি ঘটান অজ্ঞাতনামা এক ব্যক্তি। নকল কার্ড ব্যবহার করার ফলে ব্যক্তিটিকে যাচাই করা সম্ভব হয়নি বলে জানা গেছে।

‘এটিএম জালিয়াতির ঘটনাটি আমরা সরাসরি বাংলাদেশ ব্যাংক এবং ইস্টার্ন ব্যাংককে জানিয়েছি’

– ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের যোগাযোগ বিভাগের প্রধান জাভেদ ইকবাল এ কথা জানান। এ নিয়ে শুক্রবার বনানী থানায় একটি মামলাও দায়ের করা হয়েছে।

এই হ্যাকিংয়ের ঘটনায় ১২ ফেব্রুয়ারি, রোজ শুক্রবার প্রায় ৬ ঘণ্টার মত ইস্টার্ন ব্যাংকের সকল প্রকার এটিএম লেনদেন বন্ধ ছিল বলে জানিয়েছেন ব্যাংকের ব্র্যান্ড এবং যোগাযোগ বিভাগের প্রধান কর্মকর্তা জিয়াউল করিম।

বাংলাদেশ ব্যাংকের এক নির্বাহী কর্মকর্তা জানিয়েছেন, শুক্রবার বন্ধের দিন হলেও প্রত্যেক ব্যাংককে তাদের এটিএম ব্যবস্থা দ্রুত সুরক্ষিত করার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে এবং ব্যাংকগুলোকে তাদের কাস্টমারদের ডেটা চুরি হওয়ার কারন দ্রুত বের করার ও এটিএম থেকে কোন লুকায়িত ডিভাইসের মাধ্যমে ব্যবহারকারীদের তথ্য চুরি হয়েছে কিনা তাও খতিয়ে দেখার জন্য বলা হয়েছে।

কিন্তু হ্যাকিংয়ের ঘটনা সনাক্ত করার পর পরই ইস্টার্ন ব্যাংক তাদের সাথে ন্যাশনাল পেমেন্ট সুইচ এর সকল সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয় এবং ন্যাশনাল পেমেন্ট সুইচ এর দুর্বলতার কথা উল্লেখ করে কেন্দ্রীয় ব্যাংককে চিঠি পাঠান বলে জানা গেছে ইস্টার্ন ব্যাংকের এক কর্মকর্তার নিকট থেকে।

তবে বাংলাদেশের সবচেয়ে বিস্তৃত এটিএম নেটওয়ার্ক নিয়ে গড়ে ওঠা ডাচ বাংলা ব্যাংকের সহকারী নির্বাহী কর্মকর্তা আবুল কাশেম মোহাম্মদ শিরিন জানিয়েছেন-

‘আমরা শুধু ন্যাশনাল পেমেন্ট গেটওয়ের সার্ভিস (NPS) বন্ধ করেছি কিন্তু আমাদের নিজস্ব এটিএম সার্ভিস সম্পূর্ণ সচল রয়েছে।’

কিন্তু দেশের সবচেয়ে বড় প্রাইভেট ব্যাংক “প্রাইম ব্যাংক” এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক আহমেদ কামাল খান চৌধুরী ন্যাশনাল পেমেন্ট গেটওয়ের দুর্বলতার ব্যাপারটি অস্বীকার করে বলেনঃ

এখানে এনপিএস এর কোন সমস্যাই নেই, প্রতারক ব্যাক্তি ভিক্টিমের তথ্য ব্যবহার করে তাদের টাকা তুলে নিয়েছে।

অবশ্য কেন্দ্রীয় ব্যাংক এর শুভঙ্কর সাহা ন্যাশনাল পেমেন্ট গেটওয়ের ত্রুটির দিকে আঙ্গুল তুলে বলেন,

আমরা প্রতিনিয়ন এনপিএস সিস্টেম এর উন্নতি সাধন করছি এবং ভবিষ্যতেও করে যাবো

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্যমতে বর্তমানে ৫৬টি সচল ব্যাংক রয়েছে যার মধ্যে ৪৮টি ব্যাংকই ন্যাশনাল পেমেন্ট গেটওয়ের সাথে সংযুক্ত এবং বর্তমানে প্রায় ৯৮ লাখ এটিএম কার্ডহোল্ডার রয়েছে যারা দৈনন্দিন লেনদেনে ব্যবহার করেন লেনদেনের এই আধুনিক প্রযুক্তি।

 

মেহেদী হাসান পলাশ

Mehedi Hasan Polash ভালোবাসি প্রযুক্তি সম্পর্কে জানতে ও জানাতে, এই ভালো লাগা থেকেই যোগ দেওয়া প্রযুক্তি ব্লগিংয়ে। পাশে পেয়েছি টেকমাস্টার ব্লগ কমিউনিটি, দিকনির্দেশনা দিতে শ্রদ্ধেয় মেজবা উদ্দিন ভাই। ব্লগিং জগতের সবচেয়ে বড় যে পাওয়া তা হচ্ছে তথ্য, ব্লগিং এর জন্য প্রতিদিনই নিজেকে বেশি বেশি তথ্য জানতে হচ্ছে যা অনেকটা নেশার মত হয়ে দাঁড়িয়েছে। আর জীবনটাই তো শেখার জন্য, জানার জন্য। বর্তমানে নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটিতে মার্কেটিং ও ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস উভয় বিষয়ে (বিবিএ) অধ্যায়নরত। প্রয়োজনে যোগাযোগ - মেইলঃ mpolash@icloud.com গুগল প্লাস

আপনার মতামত ...