বৈশাখী উদ্যোক্তা হাট শুরু শনিবার

চাকরি খুঁজব না, চাকরি দেব গ্রুপের একটি নিয়মিত আয়োজন উদ্যোক্তা হাট। গ্রুপ উদ্যোক্তাদের তাদের পন্য ও সেবা সরাসরি ভোক্তাদের কাছে তুলে ধরার একটি আয়োজন। এবারের আয়োজন হবে ওম্যান ভলান্টারি এসোসিয়েমন, ডব্লিউ ভিএ অডিটোরিয়াম এ এপ্রিলের ১৬ থেকে ১৭ তারিখ।

আগের সব আয়োজন থেকে বড় কারণ ডব্লিউ ভিএ-র সব কটি হল ঘরই এবার নেওয়া হয়েছে। কাজে কমবেশি ৫৫ জন উদ্যোক্তাকে হয়তো জায়গা দেওয়া যাবে।

বৈশাখী উদ্যোক্তা হাট শুরু শনিবারস্টল মানে একটি ডেকোরেটর টেবিল ও দুইটা চেয়ার। প্যাভিলিয়ন মানে দুইটা টেবিল। পেছনের ব্যানারটা উদ্যোক্তাদের নিজেদের করে নিতে হবে।

এবারের উদ্যোক্তা হাটের সিলভার স্পন্সর হিসেবে অংশ নিচ্ছে দেশের শীর্ষস্থানীয় মোবাইল ফিনান্সিয়াল সার্ভিস প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান বিকাশ

তবে, বাইরের ব্র্যান্ডিং গুলো গ্রুপ থেকে করে দেওয়া হবে। এবছর সব উদ্যোক্তার লোগো সমেত একটি বিজ্ঞাপন পত্রিকায় প্রকাশের পরিকল্পনা আছে, আছে অনলাইন মিডিয়াতেও বিজ্ঞাপন দেওয়ার।
এই কারণে স্টল বরাদ্দ চূড়ান্ত করে ফেলা যত দ্রুত সম্ভব।
আগ্রহীদের টিকেট ইউআরএলে গিয়ে স্টল/প্যাভিলিয়নের জন্য আবেদন করার জন্য অনুরোধ করা হলো।
আগামী ১২ মার্চ পর্যন্ত আবেদন নেওয়া হবে। যদি স্টল/প্যাভিলিয়নের চেয়ে আবেদনের সংখ্যা বেশি হয় তাহলে উপস্থিত আবেদনকারীদের সামনে লটারি করে বরাদ্দ করা হবে।

বরাদ্দ প্রাপ্তির দুইদিনের মধ্যে ফী জমা দিতে হবে। কেও যদি বরাদ্দের পর স্টল না নেন তাহলে অপেক্ষমান তালিকা থেকে নেওযা হবে।


আবেদন করার আগে কয়েকটা বিষয় খেয়াল রাখলে ভাল হয়-


  • ১. হাটে কতো লোক আসবে তা আগে থেকে বলা মুশ্কিল। এটা একটা রিস্ক।
  • ২. দুইদিনই সারাদিন সেখানে কাওকে না কাওকে থাকতে হবে এবং যারা থাকবেন তাদেরকে নিজেদের মতো করে খাওয়া-দাওয়ার ব্যবস্থা করতে হবে, নিজেদের পন্যসামগ্রীর প্রতি নিজেদরই লক্ষ্য রাখতে হবে।
  • ৩. কেন্দ্রীয়ভাবে বাইরের ব্র্যান্ডিং ও প্রচারণা করা হবে। উদ্যোক্তার নিজেরও প্রচারণা করার প্রয়োজন হবে।
  • ৪. বিক্রি-বাটার চেয়ে নিজেদের মার্কেটিং-এর ব্যাপারটাকে বেশি গুরুত্ব দিতে হবে কারণ বিক্র বাটা নাও হতে পারে

তথ্য সূত্র ও বিস্তারিতঃ ফেসবুক ইভেন্ট

আপনার মতামত ...