পালালো রাশিয়ার আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স রোবট

ট্রেনিং গ্রাউন্ড থেকে ৪৫ মিনিটের জন্য পালিয়ে গিয়েছিল রাশিয়ার তৈরি আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স যুক্ত রোবট প্রমোবোট। কম্পিউটার নিজে কোন সিধান্ত নিতে পারেনা ঠিকই কিন্তু যখন তার মধ্যে অপারেটিং সিস্টেমে থাকে আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স তখন আর তাকে পায় কে! ঠিক যেন এখন হলিউডের মুভিগুলোর কথা মনে পড়ছে! মুভিতে রোবট যখন মানুষের নিয়ন্ত্রনের বাহিরে চলে যায় তখন নিজে নিজেই কত বিপত্তিই না ঘটিয়ে থাকে। তাই এই প্রমোবোট এখন চলে এসেছে গবেষক এবং রাশিয়ার মানুষদের আলোচনার শীর্ষ বিষয়ে।

promobot

১৪ জুন ইঞ্জিনিয়াররা টেস্টিং ফিল্ডে তাদের তৈরি রোবটগুলো পরীক্ষা করেছিল। এসময় প্রমোবোটগুলোকে একা একাই সব জায়গায় চলার অ্যালগরিদম শেখানো হচ্ছিল। ট্রেনিং ফিল্ড থেকে বের হওয়ার সময় এক গবেষক তার প্রমোবোটটি বন্ধ করতে ভুলে যান এবং তিনি মনে করেছিলেন সকল প্রমোবোট তোঁ সুইচ অফ, তাই তিনি আর গেটটিও লাগানোর প্রয়োজন মনে করেননি। এই সুযোগে প্রমোবোট বেড়িয়ে পড়ে ভ্রমণে। কিন্তু ভাগ্য বিড়ম্বনায় ট্রেনিং গ্রাউন্ড থেকে ৫০ মিটার পথ অতিক্রম করার পর ফুরিয়ে ব্যাটারির চার্জ। ছবিতে রাস্তার মাঝখানে দাঁড়িয়ে থাকা যে মূর্তিটি দেখছেন সেটিই চার্জহীনভাবে পড়ে থাকা অসহায় প্রমোবোটটি। এর ফলে তৈরি হয় প্রায় কয়েক কিলোমিটার দীর্ঘ জ্যাম। গাড়িতে থাকা উৎসুক জনতা গাড়ি থামিয়ে কেউ ছবি তুলতে কেউবা ভিডিও করতে ব্যস্ত হয়ে পড়ে।

প্রমোবোট

ঠিক ৪০ মিনিট পর ইঞ্জিনিয়াররা বুঝতে পারেন তাদের একটি প্রমোবোট খুঁজে পাওয়া যাচ্ছেনা। তার কয়েক মিনিট পরেই রাস্তার মাঝে রোবটটিকে খুঁজে পায়।

সোর্স- ইন্টারেস্টিং ইঞ্জিনিয়ারিং

মেহেদী হাসান পলাশ

Mehedi Hasan Polash ভালোবাসি প্রযুক্তি সম্পর্কে জানতে ও জানাতে, এই ভালো লাগা থেকেই যোগ দেওয়া প্রযুক্তি ব্লগিংয়ে। পাশে পেয়েছি টেকমাস্টার ব্লগ কমিউনিটি, দিকনির্দেশনা দিতে শ্রদ্ধেয় মেজবা উদ্দিন ভাই। ভালোই কাটছে ব্লগিং। বর্তমানে নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটিতে ম্যানেজমেন্ট ইনফরমেশন সিস্টেম (বিবিএ) অধ্যায়নরত। প্রয়োজনে যোগাযোগ ফেইসবুকে- মেহেদী হাসান গুগল প্লাস

আপনার মতামত ...