হানা দিচ্ছে ভয়াবহ ম্যালওয়ার গডলেস

সম্প্রতি গুগল প্লেস্টোরের মতোন স্থানে অস্তিত্ব পাওয়া গেলো  নতুন এক ধরনের ম্যালওয়ারের। ম্যালওয়ার বলতে আমরা বুঝি কিছু প্রোগ্রাম যা আমাদের সিস্টেমকে ক্ষতিগ্রস্থ করে… যা আমাদের গুরুত্বপুর্ন ডেটা ও চুরি করতে পারে, তবে ভিন্ন ভিন্ন ম্যালওয়ার ভিন্ন ভিন্ন রকম হয়। এবং এদের কাজ ও ভিন্ন ভিন্ন রকম হয়।

Android-malware-840x473

গডলেস ম্যালওয়ার সাধারনত অন্য কোনো অ্যাপের মধ্যে লুকিয়ে থাকে।libgodlikelib.so নামের বাইনারী ফাইলে এটি নিজের প্রয়োজনীর ডেটাগুলো ডাউনলোড করে। ম্যালওয়ারযুক্ত অ্যাপটি ইন্সটল হওয়ার পর এটি স্ক্রীন অফ হবার অপেক্ষায় থাকে। ব্যাবহারকারীর অ্যান্ড্রয়েড এর স্ক্রীন অফ হলেই এটি সিস্টেমকে রুট করে ফেলে। অ্যান্ডয়েড ৫.১ এবং এর আগের ভার্সন গুলোতে এই ম্যালওয়ার আক্রমন চালাতে সক্ষম। এবং প্রায় ৯০% অ্যান্ড্রয়েড ই রুট করতে সক্ষম। এই ম্যালওয়ারের ক্ষমতা এতোটা বেশি যে গুগল প্লে স্টোরের সিকিউরিটি ও বাইপাস করতে সক্ষম। একবার অ্যান্ডয়েডে ঘাটি গড়ার কাজ হয়ে গেলে ম্যালওয়ারটি নিজে নিজে বিজ্ঞাপন ডাউনলোড করে ব্যবহারকারীকে শো করে। নিজে নিজে গুগল প্লে থেকে বিভিন্ন অ্যাপ নামিয়ে ইন্সটল ও করে ফেলে এমনকি প্লেস্টোরে ফিডব্যাক দিতেও সক্ষম ।  সাথে সাথে এই অ্যাপ এমন শক্তিশালী কিছু ম্যালওয়ার সিস্টেম অ্যাপে ইন্সটল করে যার ফলে ইনফেক্টেড সিস্টেম থেকে এসব অ্যাপ সরানো প্রায় দুষ্কর হয়ে পড়ে

godless

গডলেস ম্যালওয়ার সবচেয়ে বেশি ছড়িয়েছে ভারত,ইন্দোনেশিয়া এবং থাইল্যান্ডে ।  প্রায় ৮ লাখ ৫০ হাজার ফোনে এই ম্যালওয়ার ইন্সটলড আছে বলে জানা গিয়েছে। এরই মধ্যে ট্রেন্ড দাবি করেছে এই ম্যালওয়ারের মাধ্যমে নজরদারিও সম্ভব। তারা এরই মধ্যে গুগল প্লে স্টোরে কিছু অ্যাপ খুজে পেয়েছে যার মধ্যে একটি হলো “summer flashlight” যা গুগল প্লে স্টোর থেকে সম্প্রতি ই রিমুভ করা হয়েছে।

এই ম্যালওয়্যার থেকে মুক্ত থাকার উপায় হলো ফোনে যা ইন্সটল করছেন তার দিকে খেয়াল রাখা সেটা যেখান থেকেই হোক, অ্যাপ নামানোর সময় ই দেখেনিন অ্যাপটি আপনার মোবাইলের কি কি পারমিশন চাচ্ছে এবং অ্যাপটি কারা বানিয়েছে । আশা করা যায় গুগল শিগরির ই এ সমস্যার সমাধান আনবে।

উদয়

সবার মধ্যেই কিছু না কিছু থাকে,সেই কিছু খোজার প্রচেষ্টাতেই আছি। ভালো লাগে টেকনোলজি,তাই টেক-মাস্টারব্লগের সাথে সম্পৃক্ততা ।

আপনার মতামত ...