শাওমি নোটবুক এয়ার মিলবে শীঘ্রই

স্মার্টফোনের বাজারে ঝড় তোলা শাওমি এখন প্রযুক্তিপ্রেমীদের কাছে খুবই পরিচিত নাম। “চাইনিজ অ্যাপল” খ্যাত এই ব্র্যান্ডটি একের পর এক চমক দিয়ে বাজারে নিজেদের অবস্থান ধরে রেখেছে বেশ উপরেই। লেটেস্ট ফ্ল্যাগশিপ ডিভাইস রেডমির দারুন সাফল্যের পর তারা ঘোষণা দিলো নতুন আরেক চমকের। তবে এবার আর স্মার্টফোন নয়, আসছে শাওমির আল্ট্রাথিন ল্যাপটপ ‘নোটবুক এয়ার‘!


অ্যাপলের ম্যাকবুক এয়ারকে টেক্কা দিতে আগামী ২ অগাস্ট চীনের বাজারে মুক্তি পেতে যাচ্ছে শাওমির প্রথম ল্যাপটপ নোটবুক এয়ার। ১৩.৩ ও ১২.৫ ইঞ্চি পর্দার দুটি মডেলকে ইতিমধ্যেই ডাকা হচ্ছে ‘ম্যাকবুক উইথ উইন্ডোজ ইনসাইড’। এতে থাকছে ইন্টেলের ষষ্ঠ প্রজন্মের আই৫ প্রসেসর, ৪/৮ গিগাবাইটের ডিডিআর৪ র্যা ম, ২৫৬/১২৮ গিগাবাইটের পিসিআইই এসএসডি, এক্সট্রা স্টোরেজের জন্যে থাকছে সাটা স্লট। ফুল মেটালিক বডির আল্ট্রাবুকটির আসল সৌন্দর্য হল ১৪.৮ মিলিমিটার পুরুত্ব যা ম্যাকবুক এয়ার থেকেও ১৩ শতাংশ পাতলা। মাত্র ১.২৮ কিলোগ্রাম/ ১.০৭ কিলোগ্রাম ওজনের মডেল দুটির ‘এডজ টু এডজ গ্লাস প্রোটেক্টেড ব্যাজেল’ যে কারুরই নজর কেড়ে নেবে। এফএইচডি স্ক্রিনের নোটবুক এয়ার দুটি ৯ থেকে ১১ ঘন্টা ব্যাটারি ব্যাকআপ দিতে সক্ষম। এতে আরো থাকছে কাস্টম ডুয়াল স্পিকারের সাথে ডলবি সাউন্ড সিস্টেম। ১৩.৫ ইঞ্চির মডেলটিতে থাকছে এনভিডিয়া ৯৪০এমএক্স গ্রাফিক্স কার্ড। বাজারের রেগুলার আল্ট্রাথিন ল্যাপটপ গুলোতে সাধারণত ইন্টিগ্রেটেড গ্রাফিক্স ছাড়া আলাদা জিপিইউ থাকেনা, নোটবুক এয়ার এখানে এগিয়ে থাকবে নিঃসন্দেহেই।

ফটো গ্যালারিতে চলুন দেখে আসি আপনার জন্যে আর কি কি থাকছে এতে।

(বড় মাপে দেখতে পছন্দের ছবিতে ক্লিক করুন)



শাওমির নোটবুক এয়ারের আনুমানিক দাম ধরা হয়েছে ৭৫০ ডলার। বিশ্ববাজারে কবে নাগাদ আসছে বলা না হলেও দারুন এই পিসিটি বাজারে শক্ত অবস্থান নেবে বলে ধরেই নেয়া যায়।

মাসউদ ইকবাল

আমি মাসউদ ইকবাল, টেকমাস্টারব্লগ কমিউনিটির একজন উপদেষ্টা। বাংলা ভাষায় প্রযুক্তি বিষয়ক ওয়েব কন্টেন্টের মানসম্মত এক সংগ্রহ তৈরীর লক্ষ্যে টেকমাস্টারব্লগের এই যাত্রায় আপনাকে স্বাগতম জানাচ্ছি। সাথে থাকুন।

আপনার মতামত ...