স্টার্টআপ টুলস সেপ্টেম্বর ২০১৭

কখনো কখনো উন্নতমানের সফটওয়্যার চালানোর জন্য কিংবা কাজের গতিশীলতা বাড়ানোর আপনার পুরনো কম্পিউটারটির জায়গায় একটি আধুনিক ল্যাপটপের প্রয়োজন পড়ে। আজ আমরা যে উন্নতমানের প্রযুক্তিগুলো ব্যবহার করছি দিন শেষে সেখানে জায়গা করে নিচ্ছে আরও উন্নত প্রযুক্তির কিছু অ্যাপ, উৎপাদনশীল টুল কিংবা অফিস হার্ডওয়্যারগুলো।

টেক পোর্টাল পিসিম্যাগ প্রতি মাসে বিভিন্ন সফটওয়্যার, হার্ডওয়্যার এবং অ্যাপ্লিকেশনগুলোকে তাদের ল্যাবে পর্যবেক্ষণ করে। এখানে প্রকাশিত ১০টি নতুন স্টার্টআপ টুলস নিয়ে আলোচনা করা হলঃ

১. এসার সুইফট ওয়ানঃ

অনেক হালকা ও মসৃণ ধাতু নির্মিত এসার সুইফট ওয়ান ল্যাপটপটি অ্যাপলের ম্যাকবুক এয়ার অপেক্ষা সস্তা। ইন্টেল পেন্টিয়াম এন৪২০০ (১.১ গিগাহার্জ) প্রসেসর ও দীর্ঘমেয়াদী ব্যাটারি সম্পন্ন এসার সুইফট ওয়ানের আছে ১৩.৩ ইঞ্চির ইন-প্লেন সুইচিং(আইপিএস) বিশিষ্ট এইচডি পর্দা(ডিসপ্লে)। এতে আরও আছে একটি কী-লক, একটি এউ এস বি ২.০ পোর্ট, একটি এস ডি কার্ডের স্লট।

২. ডিপক্রলঃ

ডিপক্রল হল এমন একটি সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন (এস.ই.ও.) টুল, যা তৈরি করা হয়েছে শুধুমাত্র ওয়েবসাইট ক্রলিং করার জন্য। অর্থাৎ এ টুলটি দিয়ে আপনি আপনার ওয়েবসাইটকে সম্পূর্ণ স্ক্যান করতে ও নিরীক্ষণ করতে পারবেন। ডিপক্রলের মাধ্যমে ব্যবহারকারীরা তাদের ওয়েবসাইট সংক্রান্ত যেকোনো তথ্য পেতে পারেন।

৩. ডেল এক্সপিএস ২৭ঃ

আর্ট, নকশা ও গ্রাফিক্সের জন্য ডেল এক্সপিএস ২৭ সবচেয়ে শক্তিশালী মাধ্যম। এক্সপিএস ২৭ এ আছে নতুন ইন্টেল কোর আই৭-৭৭০ (৩.৬ গিগাহার্জ) প্রসেসর। এতে আরও আছে চমৎকার পর্দা(ডিসপ্লে),অডিও ব্যবস্থা এবং দারুণ সব ফিচার।

৪. ফ্রেশডেস্কঃ

ফ্রেশ ডেস্ক ইতোমধ্যে সবচেয়ে সুলভ হেল্প ডেস্কের স্থানটি দখল করেছে। এটি ব্যবহার করাও সহজ। এর কোম্পানীর দ্রুত প্রসার ঘটায় স্টার্টআপ টুল হিসেবে এটি জনপ্রিয়তা পেয়েছে। এর নতুন ফিচার গুলোর মধ্যে আছে- কথা বলার বিশেষ ব্যবস্থা, কাস্টমার রিলেশনশিপ ম্যানেজমেন্ট, টিকেট ক্রয় সংক্রান্ত পরামর্শ, স্বয়ংক্রিয় কর্মপ্রবাহ এবং জিমেইল ইন্টিগ্রেশন।

৫. লেনোভো এল২৭কিউ মনিটরঃ

লেনভো এল২৭কিউ মনিটরটি পাওয়া যাচ্ছে সুলভ মূল্যে। আকর্ষণীয় ডিজাইন সমৃদ্ধ এ  মনিটরটিতে আছে ইন-প্লেন সুইচিং(আইপিএস) বিশিষ্ট পর্দা(ডিসপ্লে)। যা আপনাকে যেকোনো কোণ থেকে স্পষ্ট ও সুন্দর ছবি দেখতে সাহায্য করবে। আপনি যদি সুলভ মূল্যে ২৭ ইঞ্চি পর্দা বিশিষ্ট কোন মনিটর কিনতে চান তাহলে লেনোভোর এই নতুন মনিটরটি বেছে নিতে পারেন।

৬. আউটসিস্টেমসঃ

আউট সিস্টেমস হল শক্তিশালী ও উন্নত ফিচার সম্পন্ন একটি স্বল্প-কোড উন্নয়ন প্লাটফর্ম(লো-কোড ডেভেলপমেন্ট প্লাটফর্ম)। যা দ্বারা দারুণ সব অ্যাপ্লিকেশন তৈরি এবং সফটওয়্যার উন্নয়ন করা যায়। যদি আপনি দীর্ঘ কোডিং প্রক্রিয়া ব্যতিত সহজ ও সুন্দর অ্যাপ্লিকেশন তৈরি করতে চান তাহলে আউট সিস্টেমস হল একটি উত্তম টুল। যা ব্যবহার করলে আপনার অ্যাপ্লিকেশন তৈরির সেটআপ, প্রশিক্ষণ এবং স্থাপনার প্রাথমিক খরচগুলোও কমে যাবে।

৭. সিসেন্সঃ

বিজনেস ইন্টেলিজেন্স (বিআই) এর বাজারে সিসেন্স এখনো তেমন প্রসার লাভ করতে পারেনি। তবে এটি অবিশ্বাস্যভাবে একটি শক্তিশালী, চটপটে এবং মার্জিত বিজনেস ইন্টেলিজেন্স টুল। এর শক্তিশালী ইন-চিপ ডাটা প্রক্রিয়াকরণ পদ্ধতিতে ১০ গুণ বেশি দ্রুতগতিতে ডাটা প্রক্রিয়াকরণ করা যায়। সিসেন্সকে এমন ভাবে ডিজাইন করা হয়েছে যাতে এটি সহজে কয়েক ট্যারাবাইট ডাটা নিয়ন্ত্রন করতে পারে। এর ফিচারগুলোর একে দিয়েছে অসাধারণ কিছু দক্ষতা। ফলে যাদের প্রযুক্তি বিষয়ক অভিজ্ঞতা নেই, তারাও সহজে বিভিন্ন উৎস থেকে ডাটা সংযুক্তকরণ, গোয়েন্দা প্রতিবেদন তৈরিকরণ, সমন্বিত ড্যাশবোর্ড তৈরিকরণ  এবং তা আদান-প্রদান করতে পারে।

৮. ভেরিক্লকঃ

সঠিকভাবে সময় অনুসরণ করে চলা এবং তা পর্যবেক্ষনের জন্য ভেরিক্লক টুলটি তৈরি করা হয়েছে। কর্মচারীদের কর্ম-সময় নিবন্ধন করার জন্য এই টুলটি সকল ব্যবস্থাপকের ব্যবহার করা উচিত। কর্মচারিরা কে কখন কাজে আসছে; কাজ শেষে কে কখন যাচ্ছে এই বিষয়গুলো লিপিবদ্ধ করে রাখতে মূলত এই টুলটি ব্যবহৃত হয়।

৯. উইব্লি ঃ

উইব্লি হল একটি ওয়েবসাইট তৈরির টুল। যার ব্যবহার অত্যন্ত সহজ।  এর মাধ্যমে ওয়েবসাইট, ব্লগ এবং ই-কমার্স স্টোর অত্যন্ত আকর্ষণীয়ভাবে ডিজাইন করা যায়। ডিজাইন করার জন্য এর আছে চমৎকার সব থিম। আরও আছে বিকল্প বানিজ্যিক ব্যবস্থা এবং ওয়েবসাইট পরিসংখ্যান ও বিশ্লেষণ করার ক্ষমতা। এছাড়া এটি দিচ্ছে এইচটিএমএল/সিএসএস রুপে আপনার ওয়েবসাইট কোডটি ডাউনলোড করার সুযোগ।

১০.গুগল জ্যামবোর্ডঃ

মাসের সেরা স্টার্টআপ টুল হল গুগল জ্যামবোর্ড। মাইক্রোসফট সার্ফেস হাবের তুলনায় এটি অধিক সাশ্রয়ী। ব্যবসায়িক সুবিধার জন্য এবং ভিডিও কনফারেন্সিং এর জন্য গুগল এটি তৈরি করেছে। যা মূলত একটি অত্যাধুনিক ফোরকে রেজুলেশন (৩৮৪০ পিক্সেল) এর ডিজিটাল সাদা বোর্ড এবং দ্রুত লেখা ও আকৃতি সনাক্ত করার জন্য আছে একটি কলমের সমন্নয়ে গঠিত। গুগল জ্যামবোর্ডের এখনো অনেক উন্নয়ন প্রয়োজন। তবে গুগলের যেকোনো টুল বা সফটওয়্যার ব্যবহারের জন্য এটি উপযোগী। এই টুলটি আপনার কনফারেন্স রুমে সহজে জায়গা করে নিতে পারে।

আপনার মতামত ...