গোপন ৩ উপায়ে ইন্টারনেট ব্রাউজ!

তথ্যপ্রযুক্তির এই সময়ে ইন্টারনেট এখন হাতের মুঠোয়। এর ফলে দিন দিন বেড়ে চলছে তথ্যপ্রযুক্তির নিত্যনতুন ব্যবহার। সাথে সাথে আমাদের তথ্যের গোপনীয়তাও হুমকির মুখে পড়ছে। আমাদের বিভিন্ন তথ্য বিভিন্ন কোম্পানি তাদের কাজে ব্যবহার করছে। অনেক সময় তা আবার হ্যাকারদের আক্রমণে সেই সব তথ্য বেহাত হয়ে আমাদের ক্ষতিসাধন হয়। আর এই ক্ষতি থেকে বাঁচতে হলে অনলাইন দুনিয়ায় গোপনীয়ভাবে থাকতে হবে। 

নিজের গোপনীয়তা রক্ষার জন্য অনেক উপায় রয়েছে।

যেমন

  • গোপনীয়ভাবে ইন্টারনেট ব্রাউজিং,
  • ভিপিএন,
  • সার্চ ইঞ্জিন ইত্যাদি আরো অনেক কিছু।

অনেকে তো চান পুরোপুরি গোপনীয়ভাবে থাকতে তারা নিজের নাম, পরিচয় গোপন রাখতে পারেন। বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও নিজের পরিচয় গোপন রাখতে পারেন। তবে তা আইনগতভাবে ঠিক না।

এখন আশা যাক মূল কথায়, কিভাবে আপনি গোপনীয়ভাবে ইন্টারনেট দুনিয়ায় বিচরণ করবেন।


১। ইনকগনিটো (Incognito) 

পরিচয় গোপন রাখতে সর্বপ্রথম আপনাকে ইনকগনিটা বা প্রাইভেটভাবে ব্রাউজিং করতে হবে। এতে আপনার ইন্টারনেট ব্রাউজিং তথ্য গোপন থাকে। সোজা কথায় আপনি কি করলেন তার কোনো নাম-নিশানা থাকে না। এর ফলে আপনার ইন্টারনেট ব্রাউজিং হবে নিরাপদ এবং তথ্য বেহাত হওয়ার কোনো আশঙ্কা থাকে না।

অনেকের মনে প্রশ্ন থাকতে পারে এই ইনকগনিটো তা পাবো কই? উত্তর নিচে দেখানো ছবিতে পাবেন।

ছবিঃ পিসিতে গুগল ক্রোম ইনকগনিটো
ছবিঃ পিসিতে ফায়ারফক্সের পাইভেট উইন্ডো

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

তেমনিভাবে মোবাইলেও পাবেন এবং গোপনীয়ভাবে ব্রাউজিং শুরু করে দিন।

অনেকের মনে প্রশ্ন আসতে পারে, কেন আমরা ইনকগনিটো বা প্রাইভেটভাবে ব্রাউজিং করবো? উত্তর হলো আমরা যখন কোনো কিছু ব্রাউজিং করে থাকি তখন তার থেক কুকিজ তৈরী হয়। এই কুকিজ হলো এমন ডাটা যা আমাদের মোবাইল বা পিসিতে জমা থাকে। এই কুকিজের ফলেই আমরা কোনো কিছু সার্চ করলে তার বিজ্ঞাপন বিভিন্ন প্লাটফর্মে আসে। এতে উপকার যদি হয় তার থেকে বেশি ক্ষতিই। এতে আপনার গোপনীয়তা নষ্ট হয়। আপনার তথ্য অন্য মাধ্যমে চলে যায়।

এটি থেকে নিজেকে দূরে রাখতে চাইলে ইনকগনিটো বা প্রাইভেটভাবে ব্রাউজিং করতে পারেন। এতে কোনো ধরণের কুকিজ তৈরী হয় না। এই সুবিধাটি সকল ব্রাউজারেই পাবেন।


২। সার্চ ইঞ্জিন

কোনো কিছু সার্চ করার জন্য আমরা সকলেই গুগল ব্যবহার করে থাকি। 

গুগল ছাড়া আমরা একদিনও চলতে পারি না।

আর এই গুগলই আমাদের সব থেকে বেশি তথ্য সংরক্ষণ করে থাকে। সেই তথ্য অনুযায়ী বিভিন্ন ধরণের বিজ্ঞাপন বা সার্ভিস প্রদান করে থাকে। তবে আমাদের এটির বিকল্প মাধ্যমও নেই। ইয়াহু বা বিংও তথ্য সংরক্ষণ করে থাকে।

কিন্তু অন্য একটি বিকল্প সার্চ ইঞ্জিন আছে যা অনেকের কাছে নতুন হতে পারে। এই সার্চ ইঞ্জিনটি হলো ডাক ডাক গো। এটি কোনো ধরণের তথ্য সংরক্ষণ করে না। এর ফলে যেমন গোপনীয়তা রক্ষা হয় তেমনি অহেতুক বিজ্ঞাপনের হাত থেকে রক্ষা পাওয়া যায়। তবে এটি গুগলের মতো এত বেশি তথ্য সরবরাহ করতে পারবে না। কিন্তু সঠিকভাবে সার্চ করে আপনার উত্তর খুঁজে নিতে পারবেন। নিজের সুরক্ষার জন্য এটি ব্যবহার করতে পারেন।


৩। ভিপিএন

বাসার যেমন একটি ঠিকানা থাকে তেমনি আপনার ইন্টারনেট ব্রাউজিং এর একটি আইপি এড্রেস রয়েছে। এটি দিয়ে আপনাকে ট্রাক করা যাবে। আপনি কোথা থেকে ইন্টারনেট ব্রাউজিং করছেন তা জানা যাবে। এটি দিয়েই ইন্টারনেট জগতে যারা বিভিন্ন অপকর্ম করে থাকে তাদেরকে ধরা হয়। তবে আইপি এড্রেস কেউ ইচ্ছে করলেই গোপন করতে পারে। এর জন্য অনেকগুলো পদ্ধতি রয়েছে তবে সব থেকে জনপ্রিয় হলো ভিপিএন।

 

ভিপিএন হলো  ভার্চুয়াল প্রাইভেট নেটওয়ার্ক। এটি ব্যবহার করে আপনি আপনার পরিচয়, আইপি গোপন রাখতে পারেন। এটি চালু রাখলে আপনাকে ভিন্ন একটি অন্য কোনো দেশের সার্ভারের সাথে সংযোগ করবে। আপনার আইপি এড্রেস পরিবর্তন হয়ে যাবে।

ভিপিএন ব্যবহার করার জন্য ইন্টারনেট দুনিয়ায় অনেক ফ্রি সফটওয়্যার/অ্যাপস রয়েছে। তবে প্রিমিয়াম ভার্সন থেকে আরো বেশি সুরক্ষা পাওয়া যাবে। ভিপিএন ব্যবহার করলে গতি একটু কম পাওয়া যায় কিন্তু সুরক্ষার জন্য ব্যবহার করতে পারেন।


৪। টর ব্রাউজার

টর বা অনিয়ন হলো একটি ব্রাউজার। এতে প্রতিদিন হাজার হাজার প্রক্সি ব্যবহার করা হয়। এর ফলে ব্যবহারকারীদের পরিচয় বের করা সম্ভব হয় না। এটি ব্যবহার করে আপনি ডার্ক ওয়েবেও প্রবেশ করতে পারবেন কিন্তু আপনার কাছে সাইটের সঠিক লিংক থাকতে হবে। প্রতিদিনের ইন্টারনেটের কাজ করার জন্য এই ব্রাউজার ব্যবহার করতে পারেন।


নিজের তথ্যকে সুরক্ষিত রাখার আরো অনেক উপায় রয়েছে। এই সবকিছু ব্যবহার করেই গোপনীয়ভাবে ইন্টারনেট ব্রাউজিং করতে পারবেন। তবে কোনো বেআইনি কাজে তা ব্যবহার করবেন না। নিজের তথ্যের সুরক্ষার জন্য তা ব্যবহার করুণ।

ইরফান

জানতে এবং জানাতে ভালোবাসি। তবে প্রযুক্তি নিয়ে জানার আগ্রহটা আরো বেশি তাই নিজে যা জানি তা তুলে ধরি টেকমাস্টার ব্লগ এবং টেকি নাউ। প্রয়োজনে যোগাযোগঃ ফেসবুক টুইটার বিশেষ প্রয়োজেনে ইমেইল hi.mdirfan07@outlook.com

আপনার মতামত ...