টাওয়ার রেডিয়েশন বিতর্ক আদালতে

দেশে মোবাইল ফোন ব্যবহারকারীদের সংখ্যা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। আর সাথে বাড়ছে বিভিন্ন অপারেটরদের টাওয়ার সংখ্যাও। এই টাওয়ারের মাধ্যেমেই মোবাইল ফোনের সেবা পেয়ে থাকি। কিন্তু এর রয়েছে অনেক নেতিবাচক দিক। এই সব টাওয়ার থেকে রেডিয়েশন নির্গত হয়। তা অনেক ক্ষতিকর। 

মোবাইল ফোনের টাওয়ার কতটা রেডিয়েশন নির্গত হয়? কতটা ক্ষতি করে থাকে? তা নিয়ে রয়েছে অনেক বিতর্ক। এই বিতর্ক গড়িয়েছে আদালত পর্যন্ত। এর রায় দেওয়া হবে আগামী ২৩ জানুয়ারীতে।

আমাদের দেশের বেশির ভাগ টাওয়ারই বাসা-বাড়ির ছাদে। কিন্তু ঐসব বাসায় যারা বসবাস করে থাকে এবং আশেপাশের মানুষের কি পরিমাণ ক্ষতি হয় তা নিয়ে বিতর্ক চলছেই। তবে আমরা সবাই জানি যে টাওয়ারের রেডিয়েশন আমাদের জন্য অনেক ক্ষতিকর তেমনি পরিবেশেরও ক্ষতি করে থাকে।

বিশ্বের অনেক দেশেই এই বিষয়ে নির্দিষ্ট নীতিমালা রয়েছে এমনকি আমাদের প্রতিবেশী দেশ ভারতেও এটি নিয়ে নীতিমালা রয়েছে। তবে এই বিষয়ে নীতিমালা করার জন্য ২০১২ সালে হাইকোর্টে রিট হয়েছিলো তবে তা এখনো নিষ্পত্তি হয়নি। এর আগে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এটি নিয়ে একটি প্রতিবেদন করেছে।

মোবাইলের রেডিয়েশনের ব্যাপারে কাজ করছে বিটিআরসি। ফ্রান্স থেকে কিছু যন্ত্রপাতিও আনা হয়েছে। এখন দেখার বিষয় ২৩ জানুয়ারি হাইকোর্ট থেকে কি রায় দেওয়া হয়।

তথ্যঃ চ্যানেল ২৪

ইরফান

জানতে এবং জানাতে ভালোবাসি। তবে প্রযুক্তি নিয়ে জানার আগ্রহটা আরো বেশি তাই নিজে যা জানি তা তুলে ধরি টেকমাস্টার ব্লগে। প্রয়োজনে যোগাযোগঃ ফেসবুক টুইটার বিশেষ প্রয়োজেনে ইমেইল hi.mdirfan07@outlook.com

আপনার মতামত ...