স্যামসাং মোবাইল ডিসপ্লে হবে ইচ্ছে মত সাইজে

samsung১৯৩৮ সালের ১ই মার্চ স্যামসাঙ এর পথ চলা শুরু।

সময়ের বিবর্তনে “স্যামসাঙ”এমন একটি মোবাইল প্রতিষ্ঠান কোম্পানি যারা সব সময় তাক লাগানোর জন্য অনেক বড় টেকনোলজি রেখে দেয় পরবর্তী আকর্ষণ বলে।

উদাহরণ হিসেবে বলা যায়,তাদের গালাক্স্যি এস ,নোট এবং edge series ফোন।

দিন যতই এগুচ্ছে,মানুষ ততোই নতুনত্ব খুজতেছে।এই রকম হলে কেমন হয় যদি ব্যক্তির হাতে এমন একটা ফোন থাকে,যে ফোন এর মাধ্যমে ব্যক্তির চাহিদা অনুযায়ী স্ক্রীন বড় ছোট করা যেত?
হ্যাঁ………………………

স্যামসাঙ তাদের পরবর্তী আকর্ষণের জন্য এমন একটি ফর্ম তৈরি করার চেষ্টা চালাচ্ছে, যেখানে ফোন এর ডিসপ্লে বাঁকানো যাবে।

বর্তমান এ মানুষ একটা বড় স্ক্রীন কামনা করে কোন কিছু দেখার জন্য,তদ্রুপ একটা ছোট স্ক্রীন বহনের জন্য।

আর এই দুই আইডিয়া এক করে স্যামসাঙ এমন একটি বাঁকানো ফোন তৈরি করার চেষ্টা করছে, যা এর আগে কেউ করে নাই।

এতে করেই স্যামসাঙ এর মার্কেট চাহিদা আরও কয়েক গুন বেড়ে যাবে বলে ধারণা করা যাচ্ছে।

তবে এখন পর্যন্ত এই ফোন এর কোন ফাইনাল ডিজাইন দেখানো হয় নাই।

ধারণা করা হচ্ছে খুব শিগ্রই স্যামসাঙ তাদের এই নব্য আবিষ্কার উদ্ভাবনের মাধ্যমে সমগ্র বিশ্বে একটা সাড়া পেলতে সক্ষম হবে ব্যবহারকারীর চাহিদা পূরণের মাধ্যমে।

সাইফুল্লাহ নাহিদ

পড়তে ও জানতে ভালো লাগে... টেকনোলজি সংক্রান্ত বিষয় হলে তো কথাই নেই..? সেই ভালো লাগা থেকেই একটুখানি জানানোর প্রচেষ্টা... স্বপ্ন দেখি... অনেক স্বপ্ন... তাই দোয়া চাই সবার কাছে...

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।