১০৮ মেগাপিক্সেল ক্যাম আসলে কেমন!

সম্প্রতি মুক্তি পাওয়া ১০৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরার ফোন নিয়ে আসা শাওমির মি নোট ১০ / সিসি ৯ প্রো বাজারে ১ম। ব্লগে কিছুদিন আগে মি নোট ১০ নিয়ে একটি ছোট রিভিউ করেছিলাম, যাতে ছিলো ৫ টি ক্যামেরা! মূল আকর্ষণ ১০৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরার ফোনটিতে থাকছে জুম লেন্স(২টি), আল্ট্রাওয়াইড লেন্স, ম্যাক্রো ক্যামেরা ও পোট্রেট লেন্স

১০৮ মেগাপিক্সেলঃ

ক্যামেরাটি যথেষ্ট ডিটেইল তুলে ধরতে সক্ষম। ক্যামেরার কালার সঠিকতা খুব একটা বাস্তব না। ছবিগুলো দেখে কিছুটা সিনেম্যাটিক মনে হয় বা ইডিট করা মনে হয়। যারা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনেক ছবি পোস্ট করে থাকেন তাদের জন্য এটি ভালো একটি বৈশিষ্ট্য। ক্যামেরাটির ডাইনামিক রেঞ্জ বাজারের বাকি ফ্ল্যাগশিপ ফোন গুলোর মতো নয়, কিন্তু চলনসই।

 

এই ক্যামেরাটির আকর্ষণীয় দিক হচ্ছে, ছবিগুলোর সাইজ এতই বড় যে আপনি নিজের ইচ্ছে মতো ক্রপ করতে পারবেন এবং বোঝাও যাবে না যে ছবিটি ক্রপ করা হয়েছে। ক্রপ করার পড়েও ছবিতে যথেষ্ট ডিটেইল থাকে। ছবি ফাটার প্রবণতা নেই বললেই চলে।

READ  ডাব্লিউসিআইটি সম্মেলনে ১০টি অ্যাওয়ার্ড বাংলাদেশ'র

রাতের বেলাঃ

লো লাইট বা রাতের বেলায়ও খুবই ভালো কাজ করছিলো ক্যামেরাটি। ডিটেইল ছিলো যথেষ্ট পরিমানের। ন্যাচারাল টোনের ছবি তুলছিলো ক্যামেরাটি যা অনেকের কাছেই ভালো লাগবে।

 

জুম লেন্সঃ

ফোনটি তে রয়েছে ২ টি জুম লেন্স, একটি ২এক্স এবং অপরটি ৫এক্স। অবশ্য আপনি ডিজিটাল জুম এর মাধ্যমে ৫০ গুণ জুমও করতে পারবেন। যদিও ১০ গুণ পর্যন্ত জুম করার পড়েই ছবির ডিটেইল লস বেশ লক্ষণীয়। তাই ১০ গুণের বেশি জুম করা খুব একটা উচিৎ হবে না, ছবির কোয়ালিটির কথা ভেবে।

১ গুণ

২ গুণ

৫ গুণ

১০ গুণ

ম্যাক্রো ক্যামেরাঃ

এখন বাজারের অনেক ফোনেই ম্যাক্রো ক্যামেরা অফার করছে, প্রায় সবগুলোই একই ধাচের। কিন্তু এ ক্যামেরাটি একটু ভিন্ন। এর কুয়ালিটি ছিলো অন্যান্য ক্যামেরার থেকে কিছুটা ভালো। বেশ ভালো ডিটেইল পাওয়া যাচ্ছিল ছবিগুলো তে।

READ  ২০১৮'র প্রযুক্তি নির্ভর শীর্ষ স্মার্টফোন

 

পোট্রেট লেন্সঃ

অসাধারণ সব পোট্রেট ছবি পাওয়া যাচ্ছিল এই ক্যামেরাটি তে। সাবজেক্ট এবং ব্যাকগ্রাউন্ড এর মধ্যে খুব ভালোভাবেই তফাৎ করতে পারছিল।

 

আলট্রা ওয়াইড ক্যামেরাঃ

মোটামুটি ভালো ছবি তুলতে সক্ষম ক্যামেরাটি, তবে অসাধারণ কিছু নয়। ১১৭ ডিগ্রি ফিল্ড অফ ভিউ এর ছবি তুলতে পারে এটি।

 

সেলফি ক্যামেরাঃ

৩২ মেগাপিক্সেলের ১টী সেলফি ক্যামেরা বেশ ভালো তবে অসাধারণ কিছু নয়। একটু বিউটিফাই করার প্রবনতা দেখা গিয়েছিলো।

মি নোট ১০ এর ক্যামেরা রিভিউতে ৫ ক্যামেরার কম্বিনেশন প্রোফেশনাল ফটোগ্রাফারদের বেশ কার্যকরী একটি ডিভাইস হতে পারে।

আপনার কি মতামত? জানান কমেন্ট বক্সে।

Sabbir Hasan

প্রযুক্তি নিয়ে অত্যন্ত কৌতূহলী। জানতে এবং জানাতে ভালো লাগে, তাই মাঝে মাঝে টুকিটাকি এই অনভিজ্ঞ হাতের লেখালিখি। পড়ালেখার পাশাপাশি আমি একজন গ্রাফিক ডিজাইনার এবং ফ্রন্ট-এন্ড ওয়েব ডেভেলপার।

2 thoughts on “১০৮ মেগাপিক্সেল ক্যাম আসলে কেমন!

  • November 29, 2019 at 3:45 pm
    Permalink

    এটা দিয়ে কি DSLR ক্যামেরার মত পানির ফোটা বোঝা যাবে??

    Reply
    • December 1, 2019 at 4:19 pm
      Permalink

      যাবে

      Reply

Leave a Reply

Your email address will not be published.