ফেসবুকের বিরুদ্ধে মামলা

সামাজিক যোগাযোগ এর অন্যতম অনলাইন মাধ্যম ফেসবুক, এর ব্যাবহারকারীদের গোপন তথ্য রক্ষা করতে না পারায় অস্ট্রেলিয়ার ফেডারেল কোর্টে একটি মামলার সম্মুখিন হয়। ৯ মার্চ, সোমবার ফেসবুকের কেমব্রিজ অ্যানালিটিকা কেলেঙ্কারী সম্পর্কিত ঘটনায় মামলাটি করেন অস্ট্রেলিয়ার তথ্য কমিশনার অ্যাঞ্জেলিন ফক।

অভিযোগ এ বলা হয়, ফেসবুক ২০১৪ এবং ২০১৫ সালে অস্ট্রেলিয়ান নাগরিকদের ব্যক্তিগত তথ্য অবৈধভাবে প্রকাশ করেছিল।

প্রায় তিন লাখ অস্ট্রেলিয়ান ফেসবুক ব্যবহারকারীর তথ্য ‘ইট ইজ ইউর ডিজিটাল লাইফ’ অ্যাপ্লিকেশন এর মাধ্যমে রাজনৈতিক তথ্য বিশ্লেষ্ক প্রতিষ্ঠান কেমব্রিজ অ্যানালিটিকার সাথে শেয়ার করে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ।

‘ইট ইজ ইউর ডিজিটাল লাইফ’ অ্যাপ্লিকেশনটি শুধু একজন ব্যাবহারকারীর তথ্যই সংগ্রহ করে না। সেই ব্যাবহারকারীর সাথে ফেসবুকে যুক্ত থাকা অন্য বন্ধুদের তথ্যও সংগ্রহ করে।

অস্ট্রেলিয়ার তথ্য কমিশনার  অ্যাঞ্জেলিন ফোক বলেন,

‘ফেসবুকে কোনো ব্যবহারকারীর ব্যক্তিগত তথ্য অপর কোনো ব্যাবহারকারী প্রকাশ করলে সে বিষয়ে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যাবহারকারী ফেসবুক প্লাটফর্ম এ যৌক্তিক কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ বা সেই তথ্য নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন না।’

“আমরা দাবি করি যে, ব্যবহারকারীদের জনার বাইরে প্রায় ৩১১,১২৭ অস্ট্রেলিয়ান ফেসবুক ব্যবহারকারীদের রাজনৈতিক প্রোফাইলিং সহ ব্যক্তিগত তথ্য বিক্রি করা হয়েছে এবং প্রত্যাশার বাইরেও ব্যবহার করা হয়েছে বলে প্রকাশ পেয়েছে,” অস্ট্রেলিয়ার তথ্য কমিশনার অ্যাঞ্জেলিন ফালক এক বিবৃতিতে বলেছেন।

ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত তথ্যের গোপোনীয়তা রক্ষা করতে না পারায় একটি একক মামলা হিসেবে জরিমানার অর্থ আদায় করা হবে অথবা প্রত্যেক ব্যাবহারকারী আলাদা আলাদাভাবে জরিমানার অর্থ পাবেন সে বিষয়ে এখনো কিছু জানা যায় নি। প্রত্যেক ব্যাবহারকারীর জন্য যদি আলাদা আলাদাভাবে জরিমানা ধরা হয় তবে ফেসবুককে প্রায় ৫২৯ বিলিয়ন অস্ট্রেলিয়ান ডলার পরিশোধ করতে হবে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।