করোনায় টেলিকম খাত

করোনাভাইরাসের মহামারী প্রকোপে ক্ষতির মুখে পড়েছে চায়নার টেলিকম প্রতিষ্ঠানগুলো। পূর্বের তুলনায় গ্রাহক সংখ্যা কমে গেছে অনেক। বড় বড় টেলিকম প্রতিষ্ঠান হিমশিম খাচ্ছে এই ভাইরাসের দ্বারা উদ্ভূত পরিস্থিতি মোকাবেলায়।

৫ জি যখন আরও উন্নত হচ্ছিল, শিক্ষা ও ব্যাবসাখাতে একে কিভাবে কাজে লাগানো যায় সে পরিকল্পনা করা হচ্ছিল ঠিক এই সময়টাতেই করোনাভাইরাস এর প্রভাবে পুরো বিশ্ব স্থবির হয়ে পড়ে।

২০২০ সাল প্রযুক্তির উন্নয়নে একটি গুরুত্বপূর্ণ বছর বিবেচনা করা হলেও করোনাভাইরাস এর কারণে পরিস্থিতি অন্যরকম হয়ে যায়। চীনের উহানে করোনাভাইরাস এর ধংসযজ্ঞ শুরু হলেও এখন বিশ্বের প্রায় ১৯৯ টি দেশে এর প্রভাব বিস্তৃত হয়েছে।

চায়নার টেলিকম প্রতিষ্ঠানগুলোতে বড় ধরনের প্রভাব ফেলেছে এই পরিস্থিতি। জানুয়ারি ও ফেব্রুয়ারি মাসে চায়না মোবাইল সাবস্ক্রিপশন প্রায় ৮০ লক্ষের মত গ্রাহক হারায়। চীন ইউনিকম এর গ্রাহক সংখ্যা কমে প্রায় ৭৮ লক্ষ এবং চীন টেলিকম কর্পস এর কমে ৫৬ লক্ষ।
হংকং এর ট্রেডিং এ সোমবার চায়না মোবাইলের শেয়ার ২.৭% হ্রাস পায়। চীন টেলিকমের শেয়ার ৬.৩% এবং চীন ইউনিকমের শেয়ার ৬.৪% হ্রাস পেয়েছে।

চীনে ক্রমেই অবস্থার উন্নতি হচ্ছে। টেলিকমসহ অন্যান্য প্রতিষ্ঠানগুলো খুলতে শুরু করেছে। খুব শীঘ্রই চীন ক্ষতি পুষিয়ে উঠতে পারবে বলে আশা করা যাচ্ছ।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।