চলমান প্রতিবাদে যুক্তরাষ্ট্রে ফের বন্ধ হল অ্যাপল স্টোর

খোলার কয়েক সপ্তাহ পর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে অ্যাপল তাদের বেশিরভাগ স্টোর বন্ধ করে দিতে বাধ্য হল। তবে এবার করোনাভাইরাসের কারনের নয়। মিনিয়াপলিসে জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যুর ফলে সারা দেশে প্রতিবাদ ছড়িয়ে পড়ায় অ্যাপল কর্মচারী ও গ্রাহকদের সুরক্ষার জন্য বন্ধ করা হয় স্টোরগুলো।

জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যুর বিচারের দাবিতে বিক্ষোভের কিছু জায়গায় অ্যাপলসহ অসংখ্য খুচরা দোকান থেকে সম্পত্তি ধ্বংস ও চুরি করা হয়েছে। মিনিয়াপলিসে অবস্থিত অ্যাপল এর স্টোরটি ভাঙচুর করা হয়েছে এবং লুট করা হয়েছে। যার কারনে অ্যাপলকে এটি বন্ধ করতে হয়েছে। লস অ্যাঞ্জেলস এর গ্রোভ শপিং সেন্টারের এবং ব্রুকলিন ও ওয়াশিংটন ডিসির অ্যাপলে স্টোরগুলোতেও ভাঙচুর ও লুটপাট করা হয়েছে।

অ্যাপলের ওয়েবসাইটে জানানো হয় এই সমস্ত স্টোর কমপক্ষে ৬ বা ৭ জুন অবধি বন্ধ থাকবে। ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতিযুক্ত কয়েকটি স্থানে অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ থাকবে স্টোরগুলো।

গত সপ্তাহে জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যুর বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ শুরু হওয়ার আগে করোনাভাইরাসের কারনে দীর্ঘদিন বন্ধ থাকা অ্যাপলের মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ২৭১ টি স্টোর এর মধ্যে কেবল ১৪০ টি পুনরায় চালু হয়েছিল।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।