ক্লাউড স্টোরেজ: ড্রপবক্স

ক্লাউড স্টোরেজ সুবিধাগুলো বর্তমানে বহুল ব্যবহৃত। ক্লাউড স্টোরেজ দ্বারা আপনি যেকোনো ফাইলকে সংরক্ষণ করে রাখতে পারেন এবং যখন খুশি, যেখানে খুশি ব্যবহার করতে পারেন। এ জন্য আপনার প্রয়োজন শুধুমাত্র একটি ইন্টারনেট কানেকশন। আজকে আলোচনা হবে ড্রপবক্স ক্লাউড স্টোরেজ হিসেবে কেমন?

ড্রপবক্সঃ

ড্রপবক্স হল সবচেয়ে পুরনো ক্লাউড স্টোরেজ সার্ভিস। গুগল ড্রাইভ, মাইক্রোসফট ওয়ানড্রাইভ, অ্যাপল আইক্লাউড ড্রাইভের তুলনায় ড্রপবক্স ভিন্ন এবং একেবারেই স্বতন্ত্ররুপে কাজ করে। অন্যান্য ক্লাউড স্টোরেজ সার্ভিসে এমন অনেক কাজ আছে যা ড্রপবক্সে কর যায়না। স্বতন্ত্রভাবে কাজ করার কারণে ড্রপবক্সকে যেকোনো কাজে যে কেউ ব্যবহার করতে পারে।

ব্যবহারিক সুবিধাঃ

যেহেতু ড্রপবক্স অনেক পুরানো ক্লাউড স্টোরেজ,তাই এতে আজ পর্যন্ত অনেক ধরণের ফিচার সংযুক্ত করা হয়েছে। এর মাধ্যমে ফাইল আপলোড করা যায় ও বিভিন্ন ফাইলের মধ্যে সমন্বয় সাধন করা যায়। এতে ‘ফাইল রিকভারি ও ভার্শন হিস্টোরি’ এর মতো ফিচার সংযুক্ত করা হয়েছে যার মাধ্যমে সহজে যেকোনো ফাইল খুঁজে বের করা যায়। এছাড়া বিভিন্ন ফোল্ডারের মধ্যে সমন্বয় সাধন করা, তা শেয়ার করা ছাড়াও আরও অনেক এডিশনাল অপশন আছে যার মাধ্যমে অসংখ্য ধরণের কাজ করা সম্ভব।

তার মানে এই নয় যে ড্রপ বক্স সবচেয়ে ভালো ক্লাউড স্টোরেজ। গুগল ড্রাইভ, মাইক্রোসফট ওয়ানড্রাইভ, অ্যাপল আইক্লাউড ড্রাইভে যে ধরণের ফিচার ও উন্নতমানের প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে, সে তুলনায় ড্রপবক্সের ফিচারগুলো অনেক অনুন্নত।

যারা ফাইল ম্যানেজমেন্টে দক্ষ নন তাদের ড্রপবক্স ব্যবহার করা উচিত নয়। বিশেষ করে কোন ছবি যুক্ত ফাইল সংরক্ষণে তাদের বেশি সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়। ড্রপবক্সের কোন অফিস স্যুট নেই। ড্রপবক্স দিয়ে সাধারণ কিছু এডিটিং কাজ করা যায়। তবে গুগল ড্রাইভ, মাইক্রোসফট ওয়ানড্রাইভ, অ্যাপল আইক্লাউড ড্রাইভের মতো এর মাধ্যমে এক্সেল কিংবা পাওয়ার পয়েন্টে কাজ করা সম্ভব নয়।

সংরক্ষণস্থলঃ

ড্রপবক্সে একাউন্ট খুললে আপনি পাবেন ২ জিবি খালি জায়গা। এই ফাঁকা জায়গা বাড়িয়ে ১৬ জিবি পর্যন্ত করা সম্ভব। এর জন্য আপনাকে আপনার কমপক্ষে আরও ৩২ জন বন্ধুকে ড্রপবক্স ব্যবহারের অনুরোধ জানাতে হবে। তারা ড্রপবক্স ব্যবহার শুরু করলে প্রত্যেকের জন্য আপনি .৫জিবি করে ফাঁকা জায়গা পাবেন। তাছাড়া বিভিন্ন স্যোশাল মিডিয়ার সাথে ড্রপবক্স যুক্ত করে, ড্রপবক্সে ভাল ফিডব্যাক পাঠিয়ে, ড্রপবক্স-প্রোতে সাবস্ক্রাইব করে প্রভৃতি উপায়ে ড্রপবক্সে জায়গা বাড়ানো যায়। স্যামসাং ও এইচটিসি মোবাইলে ড্রপবক্স ব্যবহার করলে অতিরিক্ত আরও অনেক ফাঁকা জায়গা পাওয়া যায়।

ড্রপবক্সের বিভিন্ন প্রিমিয়াম পরিকল্পনাও আছে। তবে সবচেয়ে সুলভ পরিকল্পনাটি হল ১ ট্যারাবাইট ফাঁকা জায়গার পরিকল্পনাটি।

 পারস্পরিক সমন্বয়ঃ

যেহেতু ড্রপ বক্স স্বতন্ত্রভাবে কাজ করে তাই এটি অন্য কোন প্রোগ্রামের সাথে সমন্বিত হয়না। তাই একে উইন্ডোজ থেকে শুরু করে লিনাক্স পর্যন্ত সর্বত্র ব্যবহার করা যায়। যদিও এটি সর্বাপেক্ষা উন্নতমানের নয় তবুও ড্রপবক্স এর বহুল ব্যবহার দেখা যায়।

আপনার মতামত ...