আইফোন ১০ কি আছে এত বিস্ময়কর!

অ্যাপলের সেপ্টেম্বর মাসের ইভেন্টটি যারা দেখেছেন তাদেরকে যদি জিজ্ঞেস করা হয় এই ইভেন্টের কোন প্রোডাক্টটি আপনার সবচেয়ে ভালো মনে রয়েছে, তাহলে দর্শক প্রথমেই বলবে আইফোন ১০। জি আইফোন টেন উচ্চারণটিই শুদ্ধ, আইফোন এক্স নয়।

তো কি আছে নতুন এই এডজ টু এডজ ডিসপ্লের আইফোন এ? বাহিরে কি পরিবর্তন?

না, বাহিরের পরিবর্তন তো আপনি চোখেই দেখতে পারবেন, তা নিয়ে না হয় বন্ধুদের সাথে আড্ডায় জানবেন কিংবা জানাবেন। আমি তো ব্লগার, আমি আপনাকে তাই জানাবো যা আপনি খুঁজছেন।

অ্যাপল এর নতুন এই আইফোনে রয়েছে এ১১ বায়োনিক চিপ, বায়োনিক! এই চিপের নামের সাথে বায়োনিক যুক্ত করার কারন হচ্ছে এতে যুক্ত রয়েছে নিউরাল ইঞ্জিন।

অ্যাপলের এ১১ বায়োনিক চিপের নিউরাল ইঞ্জিন প্রতি সেকেন্ডে ৬০০ বিলিয়ন অপারেশন চালাতে পারে যা স্মার্টফোন জগতের প্রথম এবং একমাত্র মেশিন লার্নিং বা ডিপ লার্নিং চিপ!

৬ কোর, ২ টি হাই পারফমেন্স এবং ৪ টি হাই এফিসিয়েন্ট সম্বলিত দুর্দান্ত এই প্রসেসর এর গবেষণার কাজ শুরু হয় আরও তিন বছর আগে! জি, তিন বছর আগে অ্যাপল যখন তাদের আইফোন ৬ রিলিজ করে তখন থেকে এই চিপ নিয়ে কাজ শুরু করে।

এই বায়োনিক চিপটি এক টুকরো সিলিকন মাত্র, যা ছাড়া অ্যাপলের ফেস আনলক আপনার আন্ড্রয়েডের ফেস আনলক করার এক টুকরো সফটওয়্যার মাত্র। চিপটির সাথে অ্যাপল এই প্রথম যুক্ত করেছে নিজেদের ডেভেলপকৃত গ্রাফিক্স প্রসেসর যা সরবরাহ করবে ইমাজি টেকনোলোজিস।

শুধু তাই নয়, গীকবেঞ্চ বেঞ্চমার্ক ফলাফলে স্যামসাং গালাক্সি নোট ৮, গালাক্সি এস ৮+ এমনকি ওয়ান প্লাস ফাইভ কেও হারিয়ে দিয়েছে।

মেহেদী হাসান পলাশ

Mehedi Hasan Polash ভালোবাসি প্রযুক্তি সম্পর্কে জানতে ও জানাতে, এই ভালো লাগা থেকেই যোগ দেওয়া প্রযুক্তি ব্লগিংয়ে। পাশে পেয়েছি টেকমাস্টার ব্লগ কমিউনিটি, দিকনির্দেশনা দিতে শ্রদ্ধেয় মেজবা উদ্দিন ভাই। ব্লগিং জগতের সবচেয়ে বড় যে পাওয়া তা হচ্ছে তথ্য, ব্লগিং এর জন্য প্রতিদিনই নিজেকে বেশি বেশি তথ্য জানতে হচ্ছে যা অনেকটা নেশার মত হয়ে দাঁড়িয়েছে। আর জীবনটাই তো শেখার জন্য, জানার জন্য। বর্তমানে নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটিতে ম্যানেজমেন্ট ইনফরমেশন সিস্টেম ও মার্কেটিং উভয় বিষয়ে (বিবিএ) অধ্যায়নরত। প্রয়োজনে যোগাযোগ ফেইসবুকে- মেহেদী হাসান গুগল প্লাস

আপনার মতামত ...