ওয়াইফাই রাউটার কি? রাউটার কিনতে চাই?

আমরা অনেকে অনেক ডিভাইস ব্যবহার করে থাকি। যা ওয়াইফাই সুবিধা সম্বলিত থাকে। আমরা বিভিন্ন জায়গায় বিভিন্ন কাজে ওয়াইফাই ব্যবহার করে থাকি। দ্রুত ও নিরবচ্ছিন্ন ইন্টারনেট সংযোগের জন্য ওয়াইফাই এখন জনপ্রিয়। তো চলুন জেনে নিই ওয়াফাই রাউটার সম্পর্কে।

ওয়াইফাই রাউটার কি?

এক নেটওয়ার্ক থেকে অন্য নেটওয়ার্কে ডাটা পাঠানোর পদ্ধতি হলো রাউটিং। এর জন্য যে ডিভাইস ব্যবহার করে থাকি তা হলো রাউটার। এটি ওএসআই মডেল নেটওয়ার্কে কাজ করে থাকে। মনে প্রশ্ন আসতে পারে ওএসআই মডেলটা কি? ওএসআই মডেল হলো কম্পিউটার এবং অন্যান্য নেটওয়ার্কিং ডিভাইসে কিভাবে যোগাযোগ গড়ে উঠবে তা নির্দেশ করে। এটির মডেল নির্ধারণ করে ISO.

ওয়াইফাই রাউটার ব্যবহার করার জন্য ইন্টারনেট কানেকশন লাগবে। নিকটস্থ ব্রডব্যান্ড কোম্পানির কাছ থেকে কানেকশন নিয়ে মাসিক বিল দিয়ে ইচ্ছামতো যত ইচ্ছে ডিভাইসে ইন্টারনেট চালাতে পারেন।

রাউটার কিনতে চাই?

বর্তমান সময়ে রাউটার অনেক প্রয়োজনীয় ডিভাইস। কিন্তু আমরা অনেকেই জানি না রাউটার কেনার আগে কোন কোন বিষয় খেয়াল রাখতে হবে। চলুন জেনে নিই যে সকল বিষয়ের উপর খেয়াল রাখতে হবে-

১। কয়টা ডিভাইস নিয়মিত ব্যবহার করা হবে তা ঠিক করুণ।

২। কতটুকু জায়গা কভারেজ করতে হবে তা জেনে নিন। ওয়াইফাই সিগনাল দেয়াল ভেদ করে গেলে সিগনাল উইক হয়ে যায়। বাসার গঠন অনুযায়ী ওয়াইফাই রাউটার কিনুন তাহলে ভালো কভারেজ পাওয়া যাবে।

৩। অন্যান্য কাজে ব্যবহার করলে তা আগে ঠিক করুণ।

৪। ইচ্ছেমত যেকোনো ব্রান্ডের ওয়াইফাই রাউটার নিতে পারেন। যে সকল ব্রান্ডের কিনতে পারেন তা হলো- টিপি লিংক, টেন্ডা, নেটগিয়ার, ডি লিংক, শাওমি আরো অনেক ব্রান্ড রয়েছে।

৫। ফিচার যত বাড়বে রাউটারের দামও ততো বাড়বে।

৬। রাউটার কেনার পর রাউটারটি খোলামেলা জায়গায় রাখবেন তা হলে সিগনাল ভালো পাওয়া যাবে।

৭। রাউটারের কনফিগারেশন ঠিক করুণ।

৮। রাউটারের পাসওয়ার্ড ভুলে গেলে রিসেট করে নিতে পারবেন। রাউটারে একটি বাটন থাকে তা দ্বারাই এটি করা যায়।

৯। নিয়মিত ফার্মওয়ার আপডেট দিন।

ইরফান

জানতে এবং জানাতে ভালোবাসি

আপনার মতামত ...