হুয়াওয়ে ওয়াই৭ প্রাইম (২০১৯) যা থাকছে!

চাইনীজ প্রযুক্তি পণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ে বাজারে নিয়ে এসেছে হুয়াওয়ে ওয়াই৭ প্রাইম এর ২০১৯ সংস্করণ। এতে স্ন্যাপড্রাগণ ৪৫০ চিপসেট ব্যবহার করা হয়েছে। 

ডিসপ্লেঃ 

হুয়াওয়ে ওয়াই৭ প্রাইম (২০১৯) এ ৬.২৬ ইঞ্চি আইপিএস এলসিডি ডিসপ্লে ব্যবহার করা হয়েছে। এর রেজুলেশন ৭২০*১৫২০ পিক্সেল এবং রেশিও ১৯ঃ৯। এতে ছোট ওয়াটার ড্রপ নচ ব্যবহার করা হয়েছে। ডিসপ্লের সুরক্ষার ব্যাপারে কোনো কিছু উল্লেখ নেই।

চিপসেটঃ 

এতে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগণ ৪৫০ প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। আগের সংস্করণ হুয়াওয়ে ওয়াই৭ প্রাইম (২০১৮) সংস্করণে স্ন্যাপড্রাগণ ৪৩০ চিপসেট ব্যবহার করা হয়েছিলো। এর জিপিউ হিসেবে থাকছে অ্যাড্রিনো ৫০৬।

র‍্যাম ও স্টোরেজঃ 

ডিভাইসটিতে ৩ জিবি র‍্যাম ব্যবহার করা হয়েছে এবং ইন্টারনাল স্টোরেজ ৩২ জিবি। যা মাইক্রো এসডি কার্ড দিয়ে ৫১২ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে। মেমরি কার্ড সিম ২ স্লটে ব্যবহার করতে হবে।

ক্যামেরাঃ 

ছবি তোলার জন্য এর পেছনে ১৩ (অ্যাপার্চার এফ/১.৮) ও ২ (ডেপথ সেন্সর) মেগাপিক্সেলের ডুয়েল ক্যামেরা ব্যবহার করা হয়েছে। এটি দিয়ে ৪কে ভিডিও রেকর্ড করা যাবে না। সেলফি তোলার জন্য রয়েছে ১৬ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা।

ব্যাটারি ও ওএসঃ

এতে ৪ হাজার মিলিঅ‍্যাম্পিয়ারের ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে। এতে ফাস্ট চার্জিং নেই। এর অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে থাকছে অ‍্যান্ড্রয়েড ৮.১ ওরিও এবং হুয়াওয়ের নিজস্ব ইএমইউআই ৮.২।

অন্যান্যঃ

ব্যবহারকারীর তথ্যের সুরক্ষার জন্য এর পেছনে রয়েছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার এবং ফেইস আনলক ২.০। এতে হেডফোন জ্যাক থাকছে। মাইক্রো ইউএসবি ২.০ ব্যবহার করা হয়েছে।

রঙ ও দামঃ 

বাজারে এটি অররা ব্লু, মিডনাইট ব্ল্যাক ও কোরাল রেড রঙে পাওয়া যাবে। এটির মুল্য ধরা হয়েছে ২০০ ইউরো (১৯ হাজার ২০০ টাকা)। তবে দেশের বাজারে এটির দাম ২২ থেকে ২৫ হাজারের মধ্যে হতে পারে।

ইরফান

জানতে এবং জানাতে ভালোবাসি। তবে প্রযুক্তি নিয়ে জানার আগ্রহটা আরো বেশি তাই নিজে যা জানি তা তুলে ধরি টেকমাস্টার ব্লগে। প্রয়োজনে যোগাযোগঃ ফেসবুক টুইটার বিশেষ প্রয়োজেনে ইমেইল hi.mdirfan07@outlook.com

আপনার মতামত ...