দেশে বন্ধ হচ্ছে টিকটক!

জনপ্রিয় ভিডিও শেয়ারিং অ্যাপ টিকটক বন্ধের উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। ইতিমধ্যেই অশ্লীল কনটেন্ট, বিপথগামী সাইট বন্ধ করে দিয়েছে সরকার। সেই ধারাবাহিকতায় আরো এমন সাইট, অ্যাপস বন্ধ করার উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে। 

সম্প্রতি আমাদের প্রতিবেশী দেশ ভারতে টিকটক বন্ধের জন্য দাবি উঠেছে। ভারত ছাড়াও আরো অনেক দেশেই এই অ্যাপ নিয়ে সমালোচনা চলছে।

টিকটক বন্ধের বিষয়ে জানতে চাইলে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, শুধু টিকটক নয় দেশীয় সংস্কৃতির জন্য হুমকি রয়েছে এমন সব ধরনের সাইট আমরা বন্ধ করে দিতে চাই।

তিনি আরো বলেন, আমি ইন্টারনেটকে নিরাপদ করতে চাই। আমার দেশ ইউরোপ না আমেরিকা না আমার দেশে বাংলাদেশ। তাই এ দেশের মানুষ, সমাজ, সাহিত্য, সংস্কৃতি সঙ্গে যায় না এমন কোনো কিছুকেই আমি রাখতে চাই না।

এসব সাইট বন্ধ করলে আবার খোলা হয়, এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, খোলা হলে বন্ধ করে দেব। যতবার খোলা হবে ততবার বন্ধ করে দেব। মানুষের জীবন ও মান ও দেশের জন্য ক্ষতিকর এসব সাইট বন্ধে কতটুকু সফল হব জানি না। তবে আমি আমার সর্বোচ্চ শক্তি দিয়ে এই দায়িত্ব পালন করে যাব। আমি আমার দেশ, মাটি ও মাকে বাঁচাতে চাই।

টিকটকের মাধ্যমে বিভিন্ন সিনেমার ডায়লগ, গানের একাংশের সাথে ঠোঁট মিলিয়ে ভিডিও তৈরী করা হয়। এছাড়া বিভিন্ন খারাপ উক্তি, অঙ্গভঙ্গির মাধ্যমেও ভিডিও তৈরী করা হয়। আমাদের সংস্কৃতির সাথে এই সব একদমই যায় না।

সূত্রঃ যুগান্তর 

ইরফান

জানতে এবং জানাতে ভালোবাসি। তবে প্রযুক্তি নিয়ে জানার আগ্রহটা আরো বেশি তাই নিজে যা জানি তা তুলে ধরি টেকমাস্টার ব্লগ এবং টেকি নাউ। প্রয়োজনে যোগাযোগঃ ফেসবুক টুইটার বিশেষ প্রয়োজেনে ইমেইল hi.mdirfan07@outlook.com

Leave a Reply

Your email address will not be published.