১৮০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারির ফোন!

শিরোনাম দেখে অনেকে অবাক হয়েছেন, তবে অবাক হওয়ার মতো কাজই করে দেখিয়েছে এ্যার্নেজাইয্যার। মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেসে ১৮ হাজার মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারির এ্যার্নেজাইয্যার পাওয়ার ম্যাক্স পি১৮কে পপ উন্মোচন করা হয়েছে।

বর্তমান সময়ে আমরা স্মার্টফোন কেনার আগে সব থেকে বেশি চিন্তা করি মোবাইলের ব্যাটারি নিয়ে। বেশি ব্যাটারি ব্যাকআপ আমাদের সকলেরই পছন্দ, তাই তো শাওমি আমাদের মনকে জয় করে নিয়েছে কম দামে ভালো কনফিগারেশনের ফোন এবং বড় ব্যাটারি দিয়ে। কিন্তু এখানে শাওমি নিয়ে কথা হবে না, কথা হবে এ্যার্নেজাইয্যার পাওয়ার ম্যাক্স পি১৮কে পপ ফোনটি নিয়ে।

এই ফোনটিতে থাকছে ৬.২ ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস আইপিএস এলসিডি ডিসপ্লে। এর রেজুলেশন ১০৮০*২২৮০ পিক্সেল এবং রেশিও ১৯ঃ৯। সাইডে রয়েছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর।

ফোনটিতে মিডিয়াটেক হেলিও পি৭০ প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে এবং এর জিপিউ মালি-জি৭২ এমপি৩। এতে ৬ জিবি র‍্যাম এবং ১২৮ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ ব্যবহার করা হয়েছে। মাইক্রো এসডি কার্ড দিয়ে ১২৮ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে।

ফোনটিতে থ্রিপল রিয়ার ক্যামেরা ব্যবহার করা হয়েছে। মূল ক্যামেরাটি ১২ মেগাপিক্সেলের আর অন্য দুটি হলো ৫ মেগাপিক্সেল ও ২ মেগাপিক্সেলের ডেপথ সেন্সর ক্যামেরা। সেলফি তোলার জন্য রয়েছে ১৬ ও ২ (ডেপথ সেন্সর) মেগাপিক্সেলের ডুয়েল পপআপ ক্যামেরা।

আগেই তো জেনেছেন ফোনটিতে ১৮ হাজার মিলিঅ্যাম্পিয়ারের ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে আর এই ব্যাটারি দিয়ে একটানা ৯০ ঘণ্টার বেশি কথা বলা যাবে। ভিডিও দেখে যদি ব্যাটারির চার্জ শেষ করতে চান তাহলে ৮ দিন বা ২০০ ঘণ্টার বেশি সময় লাগবে।

এ্যার্নেজাইয্যার দাবি করেছে, ফোনটি একবার চার্জ দিয়ে ৫০ দিন চালানো যাবে।

এই দানব আকৃতির ব্যাটারিকে ০ থেকে ১০০% চার্জ দিতে সময় লাগবে ৮-৯ ঘণ্টা। এতে থাকছে ১৮ ওয়াট ক্ষমতার ফাস্ট চার্জিং সুবিধা।

ফোনটিতে বড় আকৃতির ব্যাটারি ব্যবহার করাই এটি অনেক মোটা। মোটা আকৃতির এই ফোনটির মূল্য ধরা হয়েছে ৫৯৯ ইউরো বা ৫৭ হাজার ৩৩০ টাকা।

ছবি ও তথ্যঃ জিএসএমএরিনা ও দ্যা ভার্জ 

ইরফান

জানতে এবং জানাতে ভালোবাসি। তবে প্রযুক্তি নিয়ে জানার আগ্রহটা আরো বেশি তাই নিজে যা জানি তা তুলে ধরি টেকমাস্টার ব্লগ এবং টেকি নাউ। প্রয়োজনে যোগাযোগঃ ফেসবুক টুইটার বিশেষ প্রয়োজেনে ইমেইল hi.mdirfan07@outlook.com

আপনার মতামত ...