আকর্ষণীয় ফিচারে হুয়াওয়ে পি৩০

হুয়াওয়ে পি৩০ সিরিজ দিয়ে প্রযুক্তি প্রেমিদের বিশেষ নজর কেড়ে নিয়েছে। হুয়াওয়ে পি৩০ তে আকর্ষণীয় ফিচার নিয়ে উপস্থিত হয়েছে। চলুন জেনে নেওয়া যাক, হুয়াওয়ে পি৩০ এর পুরো কনফিগারেশন।

ডিসপ্লেঃ

ফোনটিতে ৬.১ ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস কার্ভ ওলেড ডিসপ্লে ব্যবহার করা হয়েছে। এর রেজুলেশন ১০৮০*২৩৪০ পিক্সেল এবং রেশিও ১৯.৫ঃ৯। স্ক্রিন থেকে বডির রেশিও ৮৫.৮%।

চিপসেটঃ

এতে হুয়াওয়ের নিজস্ব কিরিন ৯৮০ প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। এর জিপিউ মালি-জি৭৬ এমপি১০।

র‍্যাম ও স্টোরেজঃ

  • ৬ জিবি র‍্যাম ও ১২৮ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ
  • ৮ জিবি র‍্যাম ও ৬৪ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ
  • ৮ জিবি র‍্যাম ও ১২৮ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ
  • ৮ জিবি র‍্যাম ও ২৫৬ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ

যা মাইক্রো এসডি কার্ড দিয়ে ২৫৬ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে। মেমরি কার্ড সিম ২ স্লটে ব্যবহার করতে হবে।

ক্যামেরাঃ

ফোনটির পেছনে ব্যবহার করা হয়েছে থ্রিপল ক্যামেরা। মূল ক্যামেরাটি ৪০ (অ্যাপার্চার এফ/১.৮) মেগাপিক্সেলের ওয়াইড লেন্স। অন্য দুটি ক্যামেরা হলো ১৬ (অ্যাপার্চার এফ/২.২) মেগাপিক্সেলের আল্ট্রা ওয়াইড লেন্স এবং ৮ (অ্যাপার্চার এফ/২.৪) মেগাপিক্সেলের পেরিস্কোপ ক্যামেরা লেন্স। এটি দিয়ে কোনো রকম ডিটেইল লস ছাড়াই ৩ গুণ জুম করা যায়। এটি দিয়ে ৪কে ভিডিও রেকর্ড করা যাবে।

ফোনটির সামনে রয়েছে ৩২ (অ্যাপার্চার এফ/২.০) মেগাপিক্সেলের ওয়াইড ক্যামেরা। সেলফি ক্যামেরা দিয়ে ১০৮০ পিক্সেলে ভিডিও ধারণ করা যাবে।

আরো পড়ুনঃ স্যামসাং ও আইফোনের সাথে পাল্লা দিতে হুয়াওয়ে পি৩০ প্রো

ব্যাটারি ও ওএসঃ

এতে ৩ হাজার ৬৫০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে। রয়েছে ২২.৫ ওয়াটের ফাস্ট ব্যাটারি চার্জিং প্রযুক্তি।

এর অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে অ্যান্ড্রয়েড ৯.০ পাই এবং হুয়াওয়ের নিজস্ব ইএমইউআই ৯.১ ব্যবহার করা হয়েছে।

অন্যান্যঃ

ফোনটিতে হেডফোন জ্যাক রয়েছে। এটিতে আইপি৫৩ রয়েছ। ব্যবহারকারীর সুরক্ষার জন্য রয়েছে আন্ডার ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর ও ফেইস আনলক ফোনটিতে রয়েছে প্রায়ই সকল ধরণের সেন্সর। এই ফোনটির ওজন মাত্র ১৬৫ গ্রাম।

আরো পড়ুনঃ সাশ্রয়ী মূল্যে হুয়াওয়ে পি৩০ লাইট

রঙ ও দামঃ

অররা, অ্যাম্বার সানরাইজ, পার্ল হোয়াইট, ব্রেথিং ক্রিস্টাল, কালো রঙে ডিভাইসটি বাজারে পাওয়া যাবে।

হুয়াওয়ে পি৩০ এর মূল্য ধরা হয়েছেঃ

  • ৮ জিবি র‍্যাম ও ৬৪ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ- ৩,৯৮৮ ইউয়ান (৪৯,৯৩৪ টাকা)
  • ৮ জিবি র‍্যাম ও ১২৮ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ- ৪,৪৮৮ ইউয়ান (৫৬,১৯৫ টাকা)
  • ৮ জিবি র‍্যাম ও ২৫৬ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ- ৪,৯৮৮ ইউয়ান (৬২,৪৫৫ টাকা)

২ এপ্রিল দেশে উন্মোচিত হবে এবং ৩ এপ্রিল থেকে প্রি-বুকিং করা যাবে। দেশের বাজারে দাম কেমন হবে তা জানানো হয়নি।

ইরফান

জানতে এবং জানাতে ভালোবাসি। তবে প্রযুক্তি নিয়ে জানার আগ্রহটা আরো বেশি তাই নিজে যা জানি তা তুলে ধরি টেকমাস্টার ব্লগ এবং টেকি নাউ। প্রয়োজনে যোগাযোগঃ ফেসবুক টুইটার বিশেষ প্রয়োজেনে ইমেইল hi.mdirfan07@outlook.com

Leave a Reply

Your email address will not be published.